83 / 100

থ্রিলার মুভি আমাদের সবারই পছন্দের! থ্রিলার মুভিতে থাকে নানারকম টুইস্ট যা আমাদের মস্তিষ্ককে বিভ্রান্ত বা অন্যরকম ভাবাতে বাধ্য করে! এখানে আমি আমার পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির নাম সহ হালকা রিভিউ দিলাম! যদিও ৩০ টা আসলে সিলেক্ট করা কঠিন! অনেক নামই জোর করে বাদ দিতে হয়! তবুও চেষ্টা করলাম!

নিচে আমার নিজের পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির তালিকা শেয়ার করলাম।



1. The Prestige(2006):
একটি শহরে দুই জাদুকরের আবাস! এক দুর্ঘটনার কারনে বন্ধু থেকে দুইজন শত্রু হয়ে যায়! তারপর থেকেই দুজনের মধ্যে সেরা হবার প্রতিযোগিতা মুভিটাকে রোমাঞ্চের শেষ লেভেলে নিয়ে গেছে! পুরা মুভিটাই একের পর এক টুইস্টে ভরপুর!! আর এন্ডিং টা জাস্ট আপনাকে নাড়িয়ে দেবার মত!মুভির কনসেপ্ট থেকে শুরু করে সবকিছুই জোস! আর মুভিও স্টারে ভরপুর! After-all এটা ক্রিস্টোফার নোলানের মুভি!

The Prestige Cinema Scene By Cinevitamin
The Prestige Cinema Scene By Cinevitamin



2. Perfume:The story of a murderer(2006):
জার্মান মুভি! এক বাজারে মাছের আড়তে জন্ম নেয় এক শিশু, জন্মের সাথে সাথেই মা তার আগের তিনটা বাচ্চার মতো একেও ফেলে দেয় দুর্গন্ধযুক্ত নর্দমার পাশে! কিছুটা বড় হওয়ার পর সে খেয়াল করলো এই নর্দমার দুর্গন্ধে জন্ম দিয়েও ঈশ্বর তাকে দিয়ে দিছেন এক অদ্ভুত ক্ষমতা, ঘ্রাণশক্তি। অন্য সবার মতো পানির তৃষ্ণার চেয়ে তার বেশি তৃষ্ণা গন্ধের, হোক তা সুগন্ধ অথবা দুর্গন্ধ। না দেখেই শুধুমাত্র ঘ্রাণশক্তি দিয়ে সব কিছু ভেদ করে মাইলের পর মাইল দূরে কি আছে সব বুঝতে পারে সে! স্টোরি অফ এ মার্ডারার নাম হবার অন্য কাহিনী আছে! এই মুভিতে বেশ কিছু ১৮+ দৃশ্য আছে,যা মুভির কাহিনীর কাহিনী বিল্ডআপ করতে দরকার ছিলো.. তবে মুভির এন্ডিং থেকে শুরু করে সবকিছুই জোস।

3. Forgotten(2017):
কোরিয়ান মুভি! ধরুন, আপনি একদিন বাসায় গেলেন! যাওয়ার পর থেকেই আপনার মনে হতে থাকলো এত বছর যেই বাবা-মায়ের সাথে থেকে এসেছেন,কোনো এক কারনে তাদের নিজের বাবা-মা মনে হচ্ছেনা! ক্ষনে ক্ষনে আপনি আরো গুলিয়ে ফেলছেন কি হচ্ছে আপনার সাথে। আপনি আসলে কে? আপনি কোথায়? কি ঘটছে আপনার সাথে? মুভিটার স্টার্ট এ আপনার মনে হবে হরর ফিল্ম! কিন্তু মুভির হাফ দেখার পর হঠাৎ কাহিনী এমন ঘুরানো ঘুরাবে,আপনি নিতে পারবেন না! মাস্ট ওয়াচ মুভি!

4. Fight Club(1999):
বিষন্নতায় আক্রান্ত একজন মানুষ ডরডেন নামের একটি অদ্ভুত সাবান সেলসম্যান এর সাথে পরিচিত হয় এবং তার নিখুঁত অ্যাপার্টমেন্ট ধ্বংস হওয়ার পর সে তার সাথেই থাকা শুরু করে.দুই বিরক্ত পুরুষ কঠোর নিয়মের সাথে একটি ভূগর্ভস্থ ক্লাব গঠন করে এবং তাদের মানসিক জীবন দিয়ে তৃপ্তির সাথে লড়াই করে.মুভিটির লাস্টে এমন কিছু হবে যা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না! A Masterpiece এবং আমার নিজের পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির তালিকার অন্যতম সেরা।

5. Memento(2000):
আবারো ক্রিস্টোফার নোলান! মুভি নরমালি আমরা দেখি কাহিনীর শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত… বাট এই মুভিটার কাহিনী আপনি দেখা শুরু করবেন শেষ থেকে!

Memento Cinema Scene
Memento Cinema Scene



6. Mulholland Drive(2001):
অনেকের মতে এটি এই শতকের সেরা ইংলিশ থ্রিলার! মুভির শুরুতেই এক মহিলা তার অতীত ভুলে যায়! সে কে? সে কোথায়,তার কিছুই মনে থাকেনা! ঘটনাক্রমে সে এক এক্ট্রেসের বাসায় আশ্রয় নেয়,যেখানে এক্ট্রেসের এক আত্মীয়ের সাথে তার পরিচয় হয়! এবং তারা দুজন মিলে তার অতীত এবং আসল পরিচয়ের জন্য খোজ করতে থাকে! মুভিটার স্টার্টিং এর সাথে এন্ডিং এর বিন্দুমাত্র মিল নেই! এন্ডিং এ আছে অস্থির টুইস্ট!

7. Vertigo(1958):
স্যার আলফ্রেড হিচকক মানেই অন্যকিছু! তার প্রত্যেকটা থ্রিলারই মাস্টারপিস বলা যায়! একটা কথা আছে যে, হিচককের থ্রিলার শুধুমাত্র হিচককই বানাতে পারে,তা কপি করলেও আসল মুভিকে টাচ করতে পারেনা! Vertigo তে একজন অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসারের হাইটফোবিয়া থাকে! তার এক পুরাতন বন্ধু তাকে অনুরোধ করে যে ওনার স্ত্রীকে ফলো করার জন্য! শুরু হয় মুভির স্টোরি।

8. Shutter island(2010):
লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও অভিনীত একটি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার! একটি দ্বীপকে ঘিরে এই মুভির কাহিনী! যাতে রাখা আছে মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষজনদেরকে! মুভিটার ডায়লগ, এক্টিং, পরিবেশ, এন্ডিং সবকিছুই আপনাকে মুভিটা ভালো লাগাতে বাধ্য করবে!

9. Psycho(1960):
হিচককের আরেকটি মুভি! থ্রিলার জগতের সেরা মুভির নাম বলতে গেলে সাইকোর নাম না আসাটা হতাশাজনক! এক ধনবান ব্যক্তি এক মহিলার কাছে ৪০০০০ ডলার রাখতে দেন,যা নিয়ে অই মহিলা পালিয়ে যান! শুরু হয় মুভির স্টোরি! শুধুমাত্র কনসেপ্ট না। মুভির ক্যামেরা এংগেল,বিজিএম,সবকিছুই মুভিটিকে ভাল্লাগাবে..

10. Inception(2010):
ক্রিস্টোফার নোলান এক অসাধারন ডিরেক্টর যে মানুষের মন নিয়ে খেলতে ভালোবাসে! ওনার ১০ টা মুভির একটির সাথে আরেকটির কোনো মিল মেই! বাট উনি প্রতিটি কনসেপ্টেই আমাদেরকে ঐ কনসেপ্টের উপরে বেস্ট মুভি উপহার দিয়েছেন! আমরা জীবনে কখনো না কখনো হয়তো ভেবেছি যে,ইস! আমি যদি আমার স্বপ্নকে কন্ট্রোল করতে পারতাম!! এই মুভিতে স্বপ্নকে নিয়ে এক অদ্ভুত খেলা করেছেন নোলান! স্বপ্নের ভিতর স্বপ্ন! তার ভিতর স্বপ্ন! তার ভিতর আবার স্বপ্ন! আমার নিজের পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির তালিকার মাস্টারপিস সিনেমা।

Inception Cinema Scene
Inception Cinema Scene



11. No Mercy (2010):
কোরিয়ান মুভি। প্রতিশোধ যে আসলে কাকে বলে ও কি কি, আর প্রতিশোধ যে কতটা ভয়ানক আর অমানবিক হতে পারে এটা জানতে হলে আপনাকে থ্রিলার জগতের এই মাস্টারপিসটি দেখতেই হবে। মুভির শেষটা দেখলে আপনি নিজের মাথার চুল টানবেন আর বলবেন,এটা কি দেখলাম। ভাববেন যা দেখসেন,তা যেনো ভুলে যান! মাথায় যাতে না আসে!

12. Drishyam(2015):
যত যাই হয়ে যাক, নিজের ফ্যামিলি যে সবার আগে এই দুর্দান্ত কনসেপ্ট নিয়ে এই পুরা মুভিটি তৈরি। মুভির শুরুর কিছু পরেই একটা আনএক্সপেক্টেড খুন হয়! সেই মার্ডার কেসে পুলিশের হাত থেকে বাচতে কি নিদারুণ প্ল্যান করে,এই চরম থ্রিল পেতে আপনার মুভিটা দেখা উচিত! এটি আমার পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির তালিকার বলিউড থেকে অন্যতম সেরা।

13. Oldboy(2003):
কোরিয়ান মুভি থ্রিলারের রাজ্য হলে ওল্ডবয় তার রাজা! একটি লোককে ১৫ বছর একটা বদ্ধঘরে আটকে রাখা হয়। তার বেচে থাকার সংগী থাকে শুধুমাত্র একটি টিভি। তারপর হঠাৎ ই একদিন সে নিজেকে আবিষ্কার করে রুমের বায়রা! শুরু হয় মুভির কাহিনী! কে বা কারা তার সাথে এই নিষ্ঠুর অবিচার করলো,কেনই বা তাকে ১৫ টা বছর একটি রুমে বন্দি করে একাকী করে রাখলো তা জানার জন্য খোজ লাগাতে শুরু করলো!!! এটার এন্ডিংটা আপনি জাস্ট মাথায়ও আনতে পারবেন না! তবে এটা একটি ডিস্টার্বিং মুভি! তাই এটার টুইস্ট আর থ্রিল নিতে পারলে তবেই দেখবেন!

14. The Invisible Guest(2016):
কোরিয়ানরা থ্রিলারে মাস্টার হলেও স্প্যানিশরাও কিন্তু কম যায়না! আর তার প্রমাণস্বরূপ আপনাকে এই মুভিটি মাস্ট দেখতে হবে।এক জনপ্রিয় ব্যবসায়ী তার এক্সের সাথে একটা মোটেলে যায়। হঠাৎ তাদের রুমে অজানা কেউ এসে প্রেমিকাকে হত্যা করে এবং ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান করে রেখে যায়। পুলিশ এসে ব্যবসায়ীকেই খুনের অভিযোগে আটক করে। তাকে বাচাতে দেশের সেরা উকিল তার এই কেসটা নেয়। উকিলকে ব্যবসায়ী তার জীবনের কাহিনী বলা শুরু করে! আপনি মুভিটি যতই দেখবেন,ততই ভালোবাসতে শুরু করবেন! মুভিটার শেষদিকে ঘটনা এতটাই চেঞ্জ হয়ে যায় যে শুরুর সাথে কোনো মিলই থাকেনা!

15. The sixth sense(1999):
হরর থ্রিলার জনরার একটি মুভি! এক ছোট ছেলে ভূতদের দেখতে পায়! যারা মৃত্যুর পর শান্তি পেত না,সাধারনত তাদেরকেই দেখতে পেত! মনোবিজ্ঞানী ডঃ ম্যালকম ব্যতীত সে কাউকে তার যন্ত্রণা সম্পর্কে বলতে ভয় পান! লাস্টে জাস্ট ১০ সেকেন্ডে মুভির পুরা কাহিনী চেঞ্জ করে দিবে। জোস মুভি।

The sixth sense Cinema Scene
The sixth sense Cinema Scene



16. The Others(2001):
স্প্যানিশ মুভি! আমরা অনেক রকমের হরর ফিল্ম দেখি…যেখানে মাঝেমাঝে ভূত আসে…বাট এই আলাদা ধাচের হরর থ্রিলার মুভিটা দেখতে বসলে আপনি ভূতকে সাথে নিয়েই দেখতে বসবেন এক কথায়….আর এন্ডিংটা আপনাকে “এটা কি দেখলাম” বলতে বাধ্য করবে!

17. Andhadhun(2018):
আকাশ একজন অন্ধ ট্যালেন্টেড পিয়ানিস্ট! ঘটনাক্রমে বিখ্যাত অভিনেতা Pramad Sinha আকাশকে তার বাড়িতে আমন্ত্রণ জানায়,তার বউ সিমিকে (Tabu) সারপ্রাইজ হিসেবে পিয়ানো বাজিয়ে শোনানোর জন্য। শুরু হয় মুভির কাহিনী আর একের পর এক টুইস্ট। মুভিটা এতটাই টুইস্টে পরিপূর্ণ যে মুভি শেষ করলেও আপনার মাথা গোলাবে যে কি হলো আসলে! পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির তালিকায় বলিউড থেকে আরেক অন্তর্ভুক্তি।

18. Triangle(2009):
টাইম লুপ নিয়ে একটি আন্ডাররেটেড মুভি! মুভিটা সম্পর্কে কিছু বললে বুঝবেন না।বাট এই মুভিটা দেখতে চাইলে একটা কথা বলি…এটা টেনে দেখার মত মুভি না,বা গল্প করতে করতে দেখার মুভি না,এই মুভির প্রত্যেকটা ডায়লগ,প্রত্যেকটা মোমেন্ট ইম্পর্ট্যান্ট! এই মুভিটা শেষ করে অনেকেরই ভালো লাগেনা,এর কারন মুভি শেষ করে যদি আপনি এই মুভির এক্সপ্লানেশন না পড়েন আপনি মুভির আসলে কিছুই বুঝেননি! তবে এক্সপ্লানেশন পড়লে তখন ভাববেন এটা কি ছিলো!! আমি আমার পোস্টের শেষে এক্সপ্ল্যানেশনের লিংক দিয়ে দিবো! কেউ দেখলে দেখা শেষে অই লিংকে গিয়ে এক্সপ্ল্যানেশন পড়ে নিবেন!

19. Identity(2003):
একটি বৃষ্টির রাতের কাহিনী! ঘটনাক্রমে একই হোটেলে জড়ো হয় ১০ জন মানুষ। তারা বিভিন্নজন বিভিন্ন পেশার। কিন্তু কাহিনীর ফ্লো এর সাথে সাথে একের পর এক খুন হতে থাকে! প্রচন্ড থ্রিলের এই মুভিটার এন্ডিং টাও আপনাকে চমক লাগাবে!

20. Ratsasan(2018):
সিরিয়াল কিলিং কাহিনী! এই মুভি নিয়ে বহুত পোস্ট আছে! ২ ঘন্টা ৪০ মিনিটের এই মুভিটার লাস্ট ১০ মিনিটটা অপ্রয়োজনীয় মনে হলেও বাকি মুভিটা খুব সুন্দর। আমার মতে এটা ইন্ডিয়ার সেরা ৩ টা থ্রিলারের একটা!

Ratsasan Cinema Scene
Ratsasan Cinema Scene



21. Don’t Breathe(2016):
তিনজন চোর এক অন্ধ বৃদ্ধ লোকের বাসায় চুরি করতে যায়।। বৃদ্ধ একজন রিটায়ার্ড আর্মি অফিসার যে কিনা এক যুদ্ধে তার দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে। চুরির করার এই ক্ষুদ্র কনসেপ্টের মুভিটা আপনাকে পুরো মুভিতে রাখবে টানটান উত্তেজনায়,আপনি প্রত্যেক মুহুর্তে ভাববেন যে কি হতে চলেছে এরপর! ভালো লাগার মতো পিওর থ্রিলার মুভি..

22. The Wailing(2016):
অনেকের মতেই কোরিয়ান থ্রিলারের নাড়ি বলা হয় এই মুভিটাকে। এক গ্রামে এক ডেমনের আবির্ভাব ঘটে, যে গ্রামে একের পর একজনকে মেরেই চলেছে! ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে এক পুলিশের ফ্যামিলি! এগিয়ে চলে কাহিনী! আড়াই ঘন্টার এই হরর+থ্রিলার মুভিটি শেষ হলেও আপনি কিছুটা বিভ্রান্ত থাকবেন! মুভির প্রথম দিকটা একটু স্লো হলেও পরে আছে একের পর এক কাহিনীর মোড়!

23. Predestination(2014):
এই মুভির আপনিই সব,আপনিই মুভি! আমরা সবাইই কখনো না কখনো ভেবেছি যে,যদি আমরা টাইম মেশিনে করে অতীতে বা ভবিষ্যতে যেতে পারতাম,তাহলে কি মজাই না হতো! টাইম মেশিন যে আসলে কি ভয়ানক পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে,তার পারফেক্ট এক্সাম্পল এই মুভি! মুভিটি শেষ করে আপনি একটাই কথা বলবেন…এটি কি দেখলাম!

24. The Usual Suspects(1995):
অসংখ্য এওয়ার্ডপ্রাপ্ত একটি মুভি! পাঁচজন নিরপরাধ ব্যাক্তিকে পুলিশ আটক করে! পাঁচজন ব্যক্তি সিদ্ধান্ত নেয় যে জেল থেকে বের হয়ে এর প্রতিশোধ নিবে! জেল থেকে বের হয়ে তারা একটি টিম তৈরী করে! মুভি সম্পর্কে আর কিছু বললেই স্পয়লার হয়ে যাবে! শেষে একটি বিরাট ধাক্কা খাবেন!

25. The Silence of The Lambs(1991):
৫ টি অস্কার, অনান্য ক্ষেত্রে ৫১টি নমিনেশনসহ ৬৩ টি পুরস্কারপ্রাপ্ত মাস্টারক্লাস। এন্থনি হপকিন্সের ডঃ হ্যানিবাল ক্যারেক্টারটি মনে কাটবে এই মুভিটি দেখলে! আমার পছন্দের ৩০ টি থ্রিলার মুভির পারসোনাল লিস্টএর মোস্ট পপুলার সিনেমা।

The Silence of The Lambs Cinema Scene By Cinevitamin
The Silence of The Lambs Cinema Scene By Cinevitamin



26. The Illusionist(2007):
এক ম্যাজিশিয়ানের কাহিনী! ছোটবেলায় তার কাছ থেকে তার প্রেমিকা হারিয়ে যায়! তারপর সে নিজেকে গড়ে তুলে শহরের সবথেকে বড় ম্যাজিশিয়ান হিসেবে। হঠাৎ ই একদিন সে তার প্রেমিকাকে খুজে পায় শহরের বিশাল এক পরিবারে। মুভিটার এন্ডিং এ জাস্ট ১০ সেকেন্ডের ফ্লাশব্যাকে পুরা মুভির কাহিনী চেঞ্জ করে দিবে!

27. Talvar(2015):
বলিউড থ্রিলার! ইরফান খানের মুভি! ক্রিস্টোফার নোলান তার ইন্টারস্টেলার মুভির ডঃ মান এর ক্যারেক্টারটি সর্বপ্রথম ইরফান খানকে অফার করেন এবং তার কাছে দুই বছরের সময় চান! ইরফান খান অফারটি গ্রহণ করেননি! অই সময়ে তিনি The Lunchbox, Talvar এর মতো বলিউডের সেরা কিছু মুভিতে এক্টিং করেন! মুভিটি সম্পর্কে কিছু বলবোনা,জাস্ট ইরফান খানের এক্টিং এর জন্য হলেও দেখবেন!

28. Seven(1995):
সাতটি পাপের নাম! সাতটি খুন! খুনের তল্লাসী করার দায়িত্ব পড়ে দুই ডিটেকটভের উপর! মরগান ফ্রিম্যান এবং ব্র‍্যাড পিট!! এন্ডিং এ আছে এক অদ্ভুত টুইস্ট! তবে মুভিটি এত্ত পরে রাখার কারন,আমি ব্যাক্তিগতভাবে লাস্টের টুইস্টটি আগেই আন্দাজ করে ফেলেছিলাম!

29. The Body(2012):
স্প্যানিশ থ্রিলার! মর্গে থাকা লাশের ভেতর একটি লাশ নিখোঁজ.সেই লাশটি খোঁজার জন্য একজন গোয়েন্দা কাজ করছেন! কেউ ভাবছে লাশ ভূত হয়ে গেছে! কেউ ভাবছে সে মহিলার লাশ,তার জামাইয়ের কাজ এটা! মুভিটির লাস্টটা সেইরকম ছিল!

30. Zodiac(2007):
সত্য ঘটনার উপর নির্মিত একটি মুভি! ৭০ এর দশকে আমেরিকায় যে সিরিয়াল কিলিং এর এক আতঙ্ক চলেছে,সেটাই তুলে ধরা হয়েছে! তবে মুভিটির রানটাইম অনেক বেশি হওয়ায় অনেকে কাছে স্লো লাগে কাহিনী! তবে একটা জোস মুভির রানটাইম ফ্যাক্ট করেনা!

Zodiac Cinema Scene
Zodiac Cinema Scene



এখানে আরো অনেক থ্রিলার মুভির নামই আসতে পারতো! যার মধ্যে The Loft, The Game, Incendies, Orphan, Error 404, No smoking, Gone Girl, The Machinist, Memories of Murder, I Saw The Devil, The Hidden Face, Prisoners, The Departed ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য!

বিঃদ্রঃ এটা একটি পারসোনাল লিস্ট! এখানে কোনো সিরিয়াল মেইনটেইন করা হয়নি!

আরও পড়ুন: মার পছন্দের কয়েকটি বলিউড ওয়েব সিরিজ।

লেখক: Mehedi Tasin, চলচ্চিত্র সমালোচক