83 / 100

চার সতীনের ঘর সিনেমায় বংশ রক্ষার জন্য চার বিয়ে করেন খান সাহেব। কিন্তু কোনো স্ত্রীই তাকে সন্তান উপহার দিতে পারে না। সন্তান না হওয়ার জন্য নিজেকে দোষী মানতে নারাজ চার নম্বর স্ত্রী ফুলবানু। খানকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। ডাক্তার জানায়, সন্তান জন্মদানে অক্ষম খান সাহেব।

চার সতীনের ঘর : অভিনয়ে আলমগীর, শাবনূর, ববিতা, দিতি ও ময়ূরী। পরিচালনা নারগিস আক্তার

নার্গিস আক্তার : ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নারী নির্মাতার নাম নার্গিস আক্তার। ‘পৌষ মাসের পিরিত’ ছবিটি পরিচালনার মাধ্যমে নির্মাণে আসেন। তারপর ‘মেঘলা আকাশ’ নির্মাণ করেন। এটি একাধিক ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায়। এরপর তিনি ‘চার সতীনের ঘর’ ছবিটি নির্মাণ করেও আলোচিত হন।

চার সতীনের ঘর সিনেমার কাহিনী


বংশ রক্ষার জন্য চার বিয়ে করেন খান সাহেব। কিন্তু কোনো স্ত্রীই তাঁকে সন্তান দিতে পারে না। সন্তান না হওয়ার জন্য নিজেকে দোষী মানতে নারাজ চার নম্বর স্ত্রী ফুলবানু। খানকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। ডাক্তার জানায়, সন্তান জন্মদানে অক্ষম খান সাহেবই। মুভিতে গ্রাম বাংলার বেশ বড় একটি অসামঞ্জস্যতার চিত্র দারুণভাবে তুলে ধরেছেন পরিচালক নার্গিস আক্তার। গ্রামের প্রভাবশালী পয়সাওয়ালা খান সাহেব তার বংস রক্ষার জন্য একেরপর এক চারটি বিবি গ্রহণ করেছেন।

১ম বিবাহ তিনি ভালভাবেই করেছিলেন। কিন্তু সন্তান না হওয়ায় তাকে পরবর্তি স্টেপ নিতে হয়। বয়স যেহেতু ৫০ অতিক্রম করেছেন তাই তার সাথে যে কেউ মেয়ে বিয়ে দিতে রাজি হওয়ার কথা না। তাই তিনি বেছে নিয়েছেন একদম গরীব ঘরের মেয়েদেরকে। গ্রামে বড় হওয়ায় এইসব বিষয় অনেকটা আমার নিজের চোখে দেখার অভিজ্ঞতা হয়েছে বেশ। শুধু পয়সাওয়ালারা নন। বংস রক্ষার তাগিদে অনেক দিনমজুরও একের অধিক সাদী করিয়া থাকেন। চারটা ক্রস করেন না সুন্নত রক্ষার তাগিদে।


এখন চিকিৎসায় অনেক উন্নতি হলেও পুরুষশাসিত সমাজে এখনও অনেকে নারীকেই দোষীজ্ঞান করে বংস রক্ষাকল্পে দ্বিতীয় বিবাহকেই উপযুক্ত পদক্ষেপ হিসেবে নিয়ে থাকেন। এহেন বাস্তবতাকে চলচিত্রে রুপদানকারী পরিচালক অবশ্যই সাহসের পরিচয় দিয়েছেন।

বিবিদের উপর প্রভাব খাটানো খান মঞ্জিলের খান সাহেব চরিত্রে বাংলার একসময়কার এবং এখনও হ্যান্ডসাম আলমগীর দারুণ অভিনয় করেছেন। আর চার সতীনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন যথাক্রমে ববিতা, দিতি, ময়ুরী এবং শাবনুর। প্রত্যেকেই তাদের নিজ নিজ চরিত্রে খুব ভালো অভিনয় করেছেন। বিশেষ করে চার সতীনের সংসারে ছোট বউয়ের তেজ বেশী থাকে যা শাবনুরের অভিনয়ে বেশ সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে। আর একজন পঞ্চাশোর্ধ পুরুষের ক্ষেত্রে বউদের সব রকম চাহিদা পুরণ করা বেশ কঠিনই বটে। তাই স্ত্রীদের কিছুটা অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পরা অস্বাভাবিক কিছু নয়।

Bangla Movie: Char Shotiner Ghor Copyright- ntv Movie


চলচিত্রকে যদি সমাজের দর্পণ বলা হয় তাহলে এক্ষেত্রে এই মুভিটাকে একটা সফল উপস্থাপন বলা যেতে পারে। যাই হোক দেশকে ভালবাসুন, দেশের সিনেমা দেখুন।